Home / ত্বকের যত্ন / বিশ্বসেরা ৬টি ফাউন্ডেশনের নাম ও উপকারিতা গুলো জেনে নিন!

বিশ্বসেরা ৬টি ফাউন্ডেশনের নাম ও উপকারিতা গুলো জেনে নিন!

ত্বকের কালো দাগ, ব্রণের দাগ ঢেকে মসৃণ ত্বক পাওয়ার জন্য ফাউন্ডেশন ব্যবহার করা হয়। যেকোনো ভারী সাজ তো বটে হালকা সাজেও নারীরা ফাইউন্ডেশন ব্যবহার করে থাকেন। ত্বকের ধরণ অনুযায়ী ফাউন্ডেশন ব্যবহার করা হয়। বাজারে নানান ব্র্যান্ডের ফাউন্ডেশন কিনতে পাওয়া যায়। এত ফাউন্ডেশনের মধ্যে সেরা কিছু ফাউন্ডেশন নিয়ে আজকের এই ফিচার।

১। রেভলন কালারস্টে ফাউন্ডেশন

এই ফাউন্ডেশনটি মিশ্র ত্বক থেকে তৈলাক্ত ত্বক সবধরণের ত্বকের জন্য প্রযোজ্য। ত্বকে ম্যাট ফিনিষ এনে দেয়, কোনো তেলতেলে ভাব নেই এমনকি এটি ত্বককে ব্ল্যাক হেডস থেকে রক্ষা করে থাকে। ত্বকে কোনো প্রকার ছাপ ছাড়া দীর্ঘ সময় ত্বকে ফাউন্ডেশন ধরে রাখে।

২। মেবেলাইন ফিট মি ম্যাট

বিশ্বখ্যাত ব্র্যান্ড মেবেলাইন ফিট মি ম্যাট ফাউন্ডেশনটি সব ধরণের ত্বকের সাথে মানিয়ে যায়। হালকা এই ফাউন্ডেশনটি খুব সহজে ত্বকের সাথে মিশে যায়। ব্রণপ্রবণ তৈলাক্ত ত্বকের জন্য এটি একটি আর্দশ ফাউন্ডেশন। এটি ত্বক থেকে অতিরিক্ত তেল শুষে ব্রণ হওয়া প্রতিরোধ করে থাকে। ডার্মাটোলজিস্ট দ্বারা এটি পরীক্ষিত, তাই নির্ভাবনায় ব্যবহার করতে পারেন।

৩। লোরিয়াল ট্রু ম্যাচ সুপার ব্লেন্ডেবল মেকআপ

এসপিএফ ১৭ সমৃদ্ধ এই ফাউন্ডেশনটি সবধরনের ত্বকের সাথে মানিয়ে যায়। অনেকগুলো শেডে পাওয়া যায় এটি। মেকআপে ন্যাচারাল লুক পেতে চাইলে এই ফাউন্ডেশনটি ব্যবহার করতে পারেন। তবে এটি দিয়ে ভারী মেকআপ করা কিছুটা কঠিন। ভারী মেকআপ করতে চাইলে এর সাথে অন্যান্য প্রোডাক্ট ব্যবহার করা উচিত।

৪। নিউট্রোজেনা নারিশিং লং ওয়ার মেকআপ

অ্যান্টি অক্সিডেন্ট, ভিটামিন এ, সি, ই এবং সয়া সমৃদ্ধ এই ফাউন্ডেশনটি নিখুঁত পেতে সাহায্য করে। পরীক্ষিত হয়েছে চার সপ্তাহের মধ্যে এটি ত্বকের টেক্সচার অনেক উন্নত করে।

৫। নিক্স মিনারেল স্টিক ফাউন্ডেশন

হালকা এই ফাউন্ডেশনটি ত্বকে খুব সহজে মিশে যায়। প্রতিদিন ব্যবহারের জন্য এটি একটি আর্দশ ফাউন্ডেশন। কনট্যুরিং করতে চাইলে এটি ব্যবহার করতে পারেন। ফাউন্ডেশন এবং কন্যটুরিং উভয়ের কাজ করে দেবে এই একটি ফাউন্ডেশন।

৬। রেভলন কালারস্টে হুইপড ফাউন্ডেশন

রেভলোনের এই ফাউন্ডেশনটি দীর্ঘসময় ত্বকে স্থায়ী হয়। এটি ত্বকে মসৃণ একটি ফিনিশিং এনে দেয়। তবে কাঁচের বোতল হওয়ায় ভ্রমণে বহনে ব্যবহারে সর্তক থাকা উচিত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *