Home / ত্বকের যত্ন / উজ্জ্বল ফর্সা ত্বক পাওয়ার ৯টি ঘরোয়া ফেসপ্যাক

উজ্জ্বল ফর্সা ত্বক পাওয়ার ৯টি ঘরোয়া ফেসপ্যাক

পরিষ্কার ত্বক এবং উজ্জ্বল রঙ যে কোন তন্বী নারীর স্বপ্ন। সেই স্বপ্ন পূরণের জন্য ভালই কসরত করতে হয়। আজ উজ্জ্বল রং এর জন্য তন্বীদের কিছু দারুন সব ঘরোয়া বিউটি টিপসের কথা বলবো। তবে তার আগে একটা কথা বলতেই হয়। যতই আমরা ফেস প্যাক লাগাই বা পার্লারে যাই, এতে তো কিছু হলেও ফল পাওয়া যায়। কিন্তু এই ফলটাকে দীর্ঘ দিন ধরে রাখতে গেলে আমাদের নিজেদের কিছু অভ্যাস পাল্টাতে হবে। ডায়েট মেনে খাবার খাওয়া, রাতে ঠিক সময় ঘুমোতে যাওয়া ইত্যাদি ইত্যাদি।

ফেয়ার স্কিনের জন্য ঘরোয়া বিউটি টিপস:
সুতরাং, এখন প্রশ্ন হলো কি করে আমরা উজ্জ্বল ত্বক পেতে পারি? প্রাচীনতম এবং সবচেয়ে জনপ্রিয় কিছু ঘরোয়া বিউটি টিপস আছে যা আমাদের ত্বকের রং কে উজ্জ্বল করতে সাহায্য করে।

১. চায়ের জল এবং মধু্র মুখে প্যাক :
১ কাপ ঠাণ্ডা চা এর জল, চালের ময়দা ২ চামচ, ১/২ চামচ মধু। উপকরণগুলি দিয়ে একটি প্যাক তৈরি করুন এবং ত্বকে লাগান । মাস্কটি প্রায় ২০ মিনিট বা তার বেশী সময় পর্যন্ত মুখে লাগিয়ে রখুন। যতক্ষণ না প্যাকটি সম্পূর্ণ শুকিয়ে আসে। প্যাকটি শুকিয়ে এলে জল দিয়ে পরিষ্কার করার আগে, একবার মুখের ত্বক ম্যাসেজ করে নিন। এতে মৃত চামড়া সরে যাবে এবং চামড়া টানটান দেখাবে। এরপর ঠান্ডা জল দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।চালের আটা খুব ভাল স্ক্রাবার হিসেবে কাজ করে এবং মধু ত্বকে মশ্চারাইজ করতে সাহায্য করে।

২. ওটস এবং লেবুর প্যাক :
১ চামচ ওটস (গরম করে গুঁড়ো করে নিন) ও ১ চামচ লেবুর রস। যদি আপনার ত্বক সংবেদনশীল হয় তাহলে আপনি জল সঙ্গে লেবুর রস মিশিয়ে নিতে পারেন।

সব উপকরণ দিয়ে একটি মিশ্রন বানিয়ে মুখের লাগান। ২০ মিনিট পর জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

৩. হলুদ এবং লেবুর প্যাক :
আটা, হলুদ, লেবু রস, ও দুধ১ চামচ করে মেশান এবং মুখের ওপর সমানভাবে লাগান।
৫ মিনিটের জন্য প্যাকটি মুখে আলতো করে স্ক্রাবিং করুন এবং পরে ২০ মিনিটের জন্য শুকাতে দিন। শুকিয়ে গেলে জল দিয়ে মুখ পরিষ্কার করুন।

৪. হলুদ ও টমেটো প্যাক :
টমেটো জু্সের সঙ্গে হলুদ মিক্স করে মিশ্রণটি আপনার মুখের প্রয়োগ করুন এবং এটি শুকিয়ে গেলে কুসুম গরম জল দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। এই প্যাকটি ঘরে তৈরি করা খুব সহজ এবং এর ফলও খুব ভালো পাওয়া যায়। তাই নারীদের কাছে বেশ জনপ্রিয় প্যাক। আপনি ইচ্ছে করলে শুধু টমেটো থেঁতো করেও ত্বক ম্যাসেজ করতে পারেন। ১৫-২০ মিনিট পরে ধুয়ে ফেলুন। তফাৎ আপনি নিজেই বুঝতে পারবেন।

৫ . হলুদ দিয়ে প্যাক :
ময়দা, হলুদ এক চিম্টি ও দুধ এক সঙ্গে মেশান এবং প্যাকটি ৫ মিনিটের জন্য আপনার মুখে আলতো করে স্ক্রাব করুন এবং ২০ মিনিটের জন্য রেখে দিন। শুকিয়ে এলে জল দিয়ে মুখ পরিষ্কার করুন।

৭ . দই এবং শুকনো কমলালেবুর খোসার প্যাক:
১ চামচ কমলার খোসার গুঁড়োর সঙ্গে ১ চামচ দই মিশিয়ে, প্যাকটি ১৫-২০ মিনিটের জন্য আপনার মুখে প্রয়োগ করুন শুকিয়ে এলে জল দিয়ে ধুয়ে নিন।

৮. দই এবং লেবুর প্যাক :
১ চামচ দই এর সঙ্গে ১ চা চামচ লেবুর রস ভাল করে মেশান। মিশ্রনটি ১৫-২০ মিনিটের জন্য আপনার মুখে প্রয়োগ করুন শুকিয়ে এলে জল দিয়ে ধুয়ে নিন।
এটি আপনার ত্বকের শুধুমাত্র উজ্জ্বলই করবে না এ আপনার ত্বকে যদি ব্রণ চিহ্ন বা কোন কাল দাগ থাকে তা কমাতে সাহায্য করবে।

৯. দুধ , লেবুর রস ও মধুর প্যাক :
১ কাপ দুধ বা গুঁড়া দুধের ও ব্যবহার করতে পারেন এর সঙ্গে মধু ও লেবুর রস ভালো করে মিশিয়ে একটি পেস্ট তৈরি করুন। ১৫-২০ মিনিট মুখে লাগিয়ে রাখুন। শুকিয়ে গেলে জল দিয়ে ধুয়ে নিন।

এই ভাবে আপনি পেঁপে ও মুলতানি মাটির প্যাক যা গ্রীষ্মের জন্য আদর্শ, তাছাড়া আলুর রস, আলুর টুকরা বা পেস্ট দিনে দুইবার ব্যবহার করতে পারেন,লেবু বা কমলা রস কাঁচা দুধ সঙ্গে মিশিয়ে মুখে, শরীরের খোলা অংশে ব্যবহার করুন এতে কালো দাগ সহজেই দূর হবে।

আমাদের দেশে ঐতিহ্যবাহী একটি প্যাক হল বেসন, হলুদ এবং দই এর মিশ্রণ। হলুদ ত্বককে উজ্জ্বলতা দেয় এবং কাল দাগ সরিয়ে ফেলতে সাহায্য করে। দই অত্যধিক রোদে পোড়া দাগ মুছে ফেলে, এবং, বেসন আপনার ত্বকের পরিশোধক হিসেবে কাজ করে। সপ্তাহে তিন দিন প্যাকটি ব্যবহার করে দেখুন। আপনার থেকে কেউ চোখ সরাতে পারবেনা।

লেখাটি পছন্দ হইলে শেয়ার করতে ভুলবেন না।
নিয়মিত সুন্দর সুন্দর টিপস পেতে আমাদের ফেসবুক পেজ এ অ্যাক্টিভ থাকুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *