Home / স্বাস্থ্য সেবা / কোন প্রকার ব্যায়াম ছাড়াই মেদ ভুঁড়ি কমাতে হলে এইসব খাবার বেছে নিন!

কোন প্রকার ব্যায়াম ছাড়াই মেদ ভুঁড়ি কমাতে হলে এইসব খাবার বেছে নিন!

ভুঁড়ি বেড়ে যাচ্ছে? আয়নার সামনে দাঁড়ালে, আয়নায় নিজেকে দেখতেও ইচ্ছে করছে না। চেহারার সৌন্দর্যটাই নষ্ট করে দিচ্ছে পেটের মেদ। জামাকাপড় পরলেও মানাচ্ছে না। একসময়ের সেই চেহারাটাই উধাও। তাহলে এবার ডায়েট চার্টে সামান্য বদল আনার সময় এসেছে।

১. আমন্ড : আমন্ডে আছে পলিস্যাচুরেটেড ও মোনোস্যাচুরেটেড ফ্যাট। এগুলি অত্যাধিক খিদে নষ্ট করে। শরীরের প্রয়োজন অনুযায়ী খিদে মেটায়। অতিরিক্ত মেদ ঝরাতেও কাজ করে।

২. তরমুজ : গ্রীষ্মের ফল। তরমুজের প্রায় ৯১ শতাংশই পানি।
যা অনেক সময় পর্যন্ত পেট ভর্তি রাখে। এ ছাড়াও তরমুজে রয়েছে ভিটামিন B1, B6 এবং ভিটামিন C। তাই শরীরে মেদ জমারও ভয় থাকে না।

৩. আপেল : আপেলের মধ্যে প্রোটিন এসিড যা ওজন কমায়। ফাইবার, ফ্ল্যাভোনয়েডস্ ও বেটাক্যারোটিন যুক্ত আপেল অনেকক্ষণ পেট ভর্তি রাখে।

৪. আনারস : ব্রোমেলাইন এনজাইমযুক্ত আনারস পেটের মেদ কমায়।

৫. শসা : শশাতে লো ক্যালরি। শসা খেলে আপনার ওজন যেমন কমবে, তেমনই বাড়বে হজম শক্তি। সেই সঙ্গে ত্বক হবে উজ্জ্বল।

৬. টমাটো : টমাটোর পেটের মেদ বৃদ্ধি প্রতিরোধ করে। এই উপাদানটি ডায়াবেটিস প্রতিরোধ করে।

৭. বিনস : শরীরের মেদ ঝরাতে সাহায্য করে বিনস। বিনস হজম শক্তি ও পেশির শক্তি বাড়ায়। অনেকক্ষণ পেট ভর্তিও রাখে। অতিরিক্ত খিদের ইচ্ছেও দূর করে।

৮. সেলেরি : লো ক্যালোরি সেলেরিতে থাকে প্রচুর পরিমাণ ফাইবার, ক্যালসিয়াম ও ভিটামিন C। খাবার খাওয়ার আগে রোজ একগ্লাস সেলেরির রস খান। চাইলে সালাদ বা স্যুপ বানিয়েও খেতে পারেন। এতে ওজন কমবে।

৯. অ্যাভোকাডো : অ্যাভোকাডোয় রয়েছে অ্যামাইনো এসিড এবং পলিস্যাচুরেটেড ও মোনোস্যাচুরেটেড ফ্যাট। অ্যাভোকাডো শরীরে ওজনের ভারসাম্য বজায় রাখে এবং মেদও ঝরায়।

পেটের মেদ ভুঁড়ি ঝরাতে আজ থেকেই তাহলে ডায়েট চার্ট বদলে ফেলুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *