Home / অন্যান্য / গালে টোল পড়ার পেছনের কারণ জানলে অবাক হবেন আপনিও!

গালে টোল পড়ার পেছনের কারণ জানলে অবাক হবেন আপনিও!

 

গালের একটি ছোট্ট টোল। তাতেই বাজিমাত! আপনার হাসি হয়ে ওঠে ভুবনজয়ী। কিন্তু এই টোল পড়ে কেন? শুনলে একটু অবাকই হয়ে যাবেন। শুরুতেই বলে দেয়া যাক। গালে ‘টোল’ নামক যে বস্তুটি আমরা বয়ে বেড়াই এবং যে আমাদের সৌন্দর্য বাড়ায় শতগুণে, সেটি আসলে জিনগত ত্রুটি।

সাবকিউটেনাস কানেক্টিভ টিস্যুর পরিবর্তন ঘটে আমাদের শারীরিক গঠনের একেবারে প্রথম দিক থেকেই। কিন্তু এই গালে টোল পড়াটাকে অনেকেই আবার অন্যভাবে ব্যাখ্যা করে থাকেন। অনেকেই বলে থাকেন যদি ছেলেদের গালে টোল পড়ে তাহলে নাকি তাদের প্রথম বউ মারা যাবে! ঠিক তেমনি মেয়েদের ক্ষেত্রে যদি তেমনটি হয়ে থাকে তাদেরও নাকি প্রথম স্বামী মারা যাবে! তাহলে মুরব্বিদের এমন কথা বলার মানে কি? তবে সেটি যাই হোক না কেন। বিজ্ঞানীরা বলছে গালে টোল পড়া নাকি জিনগত কারণ। সেই অর্থে এটি রিসেসিভ জিন নয়। একটি ত্রুটিপূর্ণ জিনই আমাদের গালে ‘টোল’-এর জন্য দায়ী। বাবা এবং মা, দু’জনেরই টোল থাকতে পারে। কিন্তু তার অর্থ এই নয় যে, সন্তানের গালেও টোল পড়বে। আবার দু’গালেই টোল পড়বে, তা-ও নয়। অনেক সময়েই একগালে টোল পড়তে পারে। বলতেই পারেন, আপনার ত্রুটিই আপনার সৌন্দর্যের রহস্য।

চামড়ার পেশীতে তখন টান পরে এবং গালে টোলের সৃষ্টি হয়। এছাড়াও গালে টোল পড়ার পেছনের আরেকটি কারণ বিষণ্ণতা। আপনার গালে টোল পড়ার জন্য অবশ্যই আপনার বাবা-মা এর গালে টোল থাকতে হবে।

খুব কম সময় কিছু মানুষের শুধুমাত্র একটি গালে টোল পড়তে দেখা যায়। তবে এসবের পেছনে শুধুমাত্র জিনগত বৈশিষ্ট বিদ্যামান। বলতেই পারেন, আপনার ত্রুটিই আপনার সৌন্দর্যের রহস্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *